মোবাইল ব্যাংকিং এ লেনদেনের সীমা বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

ঢাকা: এখন থেকে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে দিনে ১০ হাজার টাকার বেশি পরিমাণ অর্থ ক্যাশ আউট বা উত্তোলন করা যাবে না। বুধবার এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সার্কুলারটি মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনাকারী সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আর্থিক সেবা ব্যবহার করে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ব্যাংক দৈনিক লেনদেনের সীমা বেঁধে দিয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী,মোবাইল ফাইন্যান্সসিয়াল সেবাদানকারী (এমএফএস) কোনও প্রতিষ্ঠানে একটি জাতীয় পরিচয়পত্রের বিপরীতে একাধিক অ্যাকাউন্ট থাকার বিষয়েও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, কোনও গ্রাহক তার অ্যাকাউন্টে দিনে অনধিক দু’বারে ১৫ হাজার টাকার বেশি ক্যাশ ইন বা জমা করতে পারবেন না। একইভাবে গ্রাহক মাসে ২০ বারে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার বেশি ক্যাশ ইন করতে পারবেন না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ী, একজন গ্রাহক দিনে দু’বারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা তুলতে বা ক্যাশ আউট করতে পারবেন। মাসে অনধিক ১০ বারে ৫০ হাজার টাকার বেশি উত্তোলন করা যাবে না।

সার্কুলারে আরও বলা হয়েছে, একটি মোবাইল হিসাবে ক্যাশ-ইন হওয়ার পর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকার বেশি ক্যাশ-আউট করা যাবে না।
একজন গ্রাহক তার মোবাইল ব্যাংকিংয়ের হিসাব থেকে টাকা স্থানান্তরের ক্ষেত্রে আগের মতোই প্রতিদিন সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা এবং মাসে ২৫ হাজার টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, একজন ব্যক্তি কোনও এমএফএস প্রোভাইডারের সঙ্গে একাধিক মোবাইল হিসাব চালাতে পারবেন না। একই জাতীয় পরিচয়পত্র/স্মার্ট কার্ড বা অন্য কোনও পরিচয়পত্রের বিপরীতে কোনও গ্রাহকের এক এমএফএসে একাধিক হিসাব থাকলে আলোচনার মাধ্যমে তিনি ঠিক করবেন, কোন হিসাবটি তিনি চালু রাখবেন।
উল্লেখ্য, এতদিন একজন গ্রাহক দিনে ৫ বার এবং মাসে ২০ বার নগদ অর্থ জমা করতে পারতেন। আর দৈনিক ৩ বার ও মাসে ১০ বার টাকা উত্তোলন করতে পারতেন। প্রতিবারে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা জমা ও উত্তোলনের সীমা নির্ধারিত ছিল। মাসে জমা ও উত্তোলনের সর্বোচ্চ পরিমাণ ছিল এক লাখ ৫০ হাজার টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *