বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় শোক প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও বার্তা

নিউজ ডেস্ক।।

নেপালের কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান পরিবহন সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের উড়োজাহাজ বিধ্বস্তের ঘটনায় গভীর শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক ভিডিও বার্তায় বিমান যাত্রীদের উদ্ধার ও চিকিৎসার কাজে নেপালের পাশে থাকার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

সোমবার যখন ওই দুর্ঘটনা ঘটে, প্রধানমন্ত্রী তখন চার দিনের সফরে সিঙ্গাপুরে। তিনি হতাহতের খবর পেয়ে শোক প্রকাশ করেন এবং নেপালের প্রধানমন্ত্রী খড়গা প্রসাদ শর্মা অলির সঙ্গে ফোনে কথা বলেন। পরে সিঙ্গাপুর থেকে এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী নেপাল সরকারকে সব রকম সহযোগিতার কথা বলেন।

কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সোমবার দুপুরে ওই দুর্ঘটনায় বিমানটির ৭১ আরোহীর মধ্যে অন্তত ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে; উদ্ধার কাজ এখনো চলছে।

ভিডিও বার্তায় শুরুতেই শোক প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘এই ঘটনায় আমি অত্যন্ত মর্মাহত। দুর্ঘটনার পরপরই নেপালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সেখানে আমাদের বাংলাদেশের যাত্রী ছিলেন, নেপালের যাত্রী ছিলেন। চায়না ও মালদ্বীপসহ কয়েকটা দেশের যাত্রী ছিলেন।’

তিনি জানান, আহতদের নেপালের পাঁচটি হসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। যেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে, তার কাছেই সেনা ছাউনি। ফলে নেপালের সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতও সেখানে ছুটে যান।

বাংলাদেশেও তিন বাহিনীর প্রধান থেকে শুরু করে সশস্ত্র বাহিনীর প্রিন্সিপ্যাল স্টাফ অফিসার এবং প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সকল কর্মকর্তা এ ব্যাপারে যোগাযোগ রাখছেন। কী কী ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সে বিষয়ে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে বলে প্রধানমন্ত্রী জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘উড়োজাহাজে আগুন লেগে অনেকের দেহ পুড়ে যাওয়ায় শনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়েছে। যারা এখনো জীবিত আছে, তাদের চিকিৎসাসহ যা যা প্রয়োজনীয় সব করতে আমরা প্রস্তুত আছি। নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে আমরা জানিয়েছি, তাদের যে কোনো ধরনের সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ প্রস্তুত আছে। সব রকম সহযোগিতা আমরা করব।’

 

Comments are closed.